অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি)

Spread the love

 বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে।  যেহেতু আমরা আপনাকে প্রযুক্তির এই বিস্ময়কর বিভাগের অংশ হতে চাই, আমরা নীচে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করছি।

গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।

বাংলাদেশে ১০ মিনিট স্কুল অনেক ভালো কাজ করছে। এই পোস্টে চলুন জেনে নেওয়া যাক আন্তর্জাতিক ১০+ অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে যেখানে আপনি বিনামূল্যে কোর্সভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। 

উল্লেখ্য, নিম্নোক্ত কিছু প্ল্যাটফর্মে কোর্স সম্পন্ন করার পর সার্টিফিকেটও প্রদান করা হয়, যা আপনি চাইলে চাকরিক্ষেত্রেও ব্যবহার করতে পারবেন।

1. হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি – ফ্রি অনলাইন ডিগ্রি ও কোর্স

পৃথিবীর সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো প্রদত্ত সার্টফিকেট তো সবাই পেতে চায়। তবে তা পাওয়া যে অনেক কঠিন, তেমন কিন্তু না। আপনার জ্ঞানের ভান্ডারকে প্রসারিত করতে চাইলেই শিখতে পারেন হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির এক্সপার্ট এবং ফ্যাকাল্টি প্রধানদের কাছ থেকে। “অডিট দ্যা কোর্স” চাইলে ফ্রিতে করতে পারেন কিংবা ছোট ফি এর বিনিময়ে কোর্স শেষে একটি ভেরিফাইড সার্টিফিকেট ও পেতে পারেন। সিএস৫০, নিউরোসাইন্স, কন্ট্রাক্ট ল, ক্যালকুলাস, মর্ডার্ন চায়না’স ফাউন্ডেশন, ইন্টোড্রাকশন টু ডেটা-ওয়াইজ এর মত অসংখ্য কোর্স রয়েছে হার্ভার্ড  ইউনিভার্সিটির অনলাইন কোর্স ক্যাটালগে।

2. এডএক্স-কোর্সেরা ফ্রি ইউনিভার্সিটি কোর্স

ডিউক ইউনিভার্সিটি, স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি, ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন, ইন্ডিয়ান স্কুল অফ বিজনেস, প্রিন্সটন এর মতো নামকরা বিদ্যাপিঠা সমূহ কোর্সেরা দ্বার প্রচালিত হয়ে থাকে। মজার ব্যাপার হলো বিশ্বের নামকরা শীর্ষ ইউনিভার্সিটি গুলো কোর্স আপনি বিনা মূল্যে ঘরে বসে শিখতে পারবেন। সারা বিশ্বের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে একজোট হয়ে ১০০ টির বেশি কোর্স তাদের সাইটে যুক্ত করে দিয়েছে। এই সকল কোর্স গুলো হলো ব্যবসা, ভাষা, স্বাস্থ্যা, সেল্ফ ডেভেলপমেস্ট, ডেটা সাইন্স ইতাদি।

প্যাসিভ আর্নিং করার সেরা উপায় বিস্তারিত জানতেভিজিট করুন

3. গুগল ডিজিটাল গ্যারেজ ফ্রি অনলাইন কোর্স

পোর্টফলিও সমৃদ্ধ করতে বা ডিজিটাল মার্কেটিং, ক্লাউড কম্পউটিং, মোবাইল অ্যাপ ডেভেলপিং ইত্যাদি কাজে দক্ষতা অর্জন করতে গুগলের এই কোর্স গুলো আপনি করতে পারেন। এই কোর্স শেষে আপনাকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে যা আপনি চাকরির ক্ষেএে ব্যবহার করতে পারেন।

4. লিন্ডা – লিংকডইন লার্নিং ফ্রি কোর্স

লিংকডইন লার্নিং বা লিন্ডা ডটকম এ পাওয়া যাবে অসংখ্য কোর্স এবং ক্লাস, যা অনলাইনেই বিনামূল্যে সম্পন্ন করা যাবে। আপনার ক্যারিয়ার উন্নতির সাথে সাথে আপনার কাজের মধ্যে অধিক গুরুত্ব যোগের লক্ষ্যে লিন্ডা এর ইন্ড্রাস্ট্রি এক্সপার্টদের থেকে শিখতে পারেন ইন-ডিমান্ড টেক, ম্যানেজমেন্ট কিংবা ক্রিয়েটিভ স্কিলস। পূর্বে লিন্ডা নামে পরিচিত থাকলেও, লিংকডইন একে কিনে নেওয়ার পর এটি বর্তমানে লিংকডইন লার্নিং নামে পরিচিত।

5. ইউডেমি – ফ্রি সার্টিফিকেশন্স

৩০০০ এর অধিক অপশন নিয়ে আপনার পছন্দের অনলাইন কোর্সটি সম্পন্ন করতে সহায়তা করবে ইউডেমি। বিগেইনার, ইন্টারমিডিয়েট এবং এডভান্স – তিনটি ডিফিকাল্টি লেভেল এ সাজানো কোর্স থেকে বেছে নিতে পারবেন আপনার পছন্দেরটি। আর্কিটেক, সিসিএনএ বুটক্যাম্প, সেলসফোর্স ক্লাসিক এডমিনিস্ট্রেটর, কমপ্লিট নেটওয়ার্ক ফান্ডামেন্টালস সহ আরো হরেক রকম কোর্সে ভরা ইউডেমি। থাকছে এসব কোর্স এর বিষয়, ডিফিকাল্টি লেভেল, ভাষা এমনকি রেটিং অনুসারে ফিল্টার করার সু্যোগ।

6. উসি বার্কলে – ফ্রি সার্টিফিকেশন

১৮৬৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই শিক্ষাব্যবস্থায় বিপ্লব আনার লক্ষ্যে বদ্ধপরিকর ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া। এরই অংশ হিসেবে অনলাইন ডিগ্রি কোর্স, ক্রেডিট এন্ড নন-ক্রেডিট কোর্সেস, এমওওসি প্রজেক্ট এর মত বিভিন্ন কারিকুলাম অনলাইনেই সম্পন্ন করছে প্রতিষ্ঠানটি। এই পদক্ষেপের কারণে সম্পূর্ণ বিশ্বের বিদ্যানিকেতনে পরিণত হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। বিশ্ববিদ্যালয়টি কতৃক পরিচালিত কিছু উল্লেখযোগ্য কোর্স হল – মার্কেটিং এনালিটিকস, সাংবাদিকতা, ইংরেজি সাহিত্য, কোয়ান্টাম মেকানিকস, স্ট্যাটিস্টিকস ইত্যাদি।

7. বোনাস: স্কিলশেয়ার – ফ্রি ক্রিয়েটিভিটি ক্লাস অনলাইন

১৭,০০০ এর অধিক কোর্স এবং লেসন নিয়ে লার্নিং প্ল্যাটফর্ম হিসেবে নিজের অস্তিত্ব জানান দিতে রীতিমত সংকল্পবদ্ধ স্কিলশেয়ার। ডিজাইন, বিজনেস, টেকনোলজি, ফটোগ্রাফি, ফিল্মমেকিং, রাইটিং ইত্যাদি সব অভিনব ক্যাটাগরিতে সাজানো রয়েছে স্কিলশেয়ার এর পাঠ তালিকা। স্কিলশেয়ার এ পাবেন প্রথম দুই মাসের ব্যবহারের জন্য সম্পূর্ণ ফ্রি।

8. এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার

বিশ্বের সেরা একাডেমিক এবং ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল এক্সপার্ট দ্বারা তৈরী হয়ছে এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার। থাকছে কিছু অসাধারণ বিষয়, যেমন – রসায়ন, ক্যালকুলাস, এন্টারপ্রনারশিপ, ট্রান্সপোর্টেশন, প্রোগামিং, লাইফ সাইন্স ইত্যাদি সম্পর্কে দক্ষতা অর্জনের সুযোগ।

9. খান একাডেমি – ফ্রি অনলাইন কোর্সেস

জ্ঞানপিপাসুদের মধ্যে অনেক বছর ধরেই বিনামূল্যে জ্ঞান বিতরণ করে যাচ্ছে খান একাডেমি। এই ফ্রি অনলাইন কোর্সগুলোর মূল লক্ষ্য হল বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকেই সবার জন্য ওয়ার্ল্ড ক্লাস এডুকেশন নিশ্চিত করা। ভালোভাবে কোর্সের বিষয় বুঝতে সাহায্য পাওয়ার পাশাপাশি আপনার হোমওয়ার্ক সম্পন্ন করে সার্টিফিকেট পাওয়া লক্ষ্যে পরীক্ষায় বসতে পারেন। গণিত, বিজ্ঞান, কম্পিউটিং, ব্যবসা, অর্থনীতি সহ যেকোনো বিষয়েই দক্ষতা অর্জনে সহায়তা করবে খান একাডেমি।

10. টেড-এড কোর্সেস

টেড টক কিংবা অন্য কোনো কারণে হয়ত টেড এর নাম আপনি শুনে থাকবেন। তবে টেড-এড সম্পর্কে অনেকেরই অজানা। সেরা কোর্সগুলোর তালিকা থাকছে এখানে। বিজনেস এন্ড ইকনোমিকস, ল্যাংগুয়েজ এন্ড লিটারেচার, ম্যাথমেটিকস, ফিলোসফি এন্ড রিজিওন, সোস্যাল স্টাডিজ, টিচিং এন্ড এডুকেশন সহ থাকছে আরো অসংখ্য বিষয়ে জ্ঞানার্জনের সু্যোগ পাবেন এখানে।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় চান্স পাওয়ার গুরুত্বপূর্ণ টিপস্ বিস্তারিত জানতে – ভিজিট করুন

11. কোর্সেরা – ফ্রি ইউনিভার্সিটি কোর্স

স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি, ডিউক ইউনিভার্সিটি, ইন্ডিয়ান স্কুল অফ বিজনেস, ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন, প্রিন্সটন এর মত নামকরা বিদ্যাপিঠসমূহ তাদের অনলাইন লার্নিং প্লাটফর্ম কোর্সেরাতে পরিচালনা করে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, বিশ্বের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই কোর্সেরাতে বর্তমানে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে। বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজের সাথে একজোট হয়ে প্রায় ১০০টির মত কোর্স নিজেদের সাইটে যুক্ত করেছে কোর্সেরা। এসব কোর্সের বিষয়গুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল – স্বাস্থ্য, সেল্ফ ডেভলপমেন্ট, ডেটা সাইন্স, ব্যবসা, ভাষা ইত্যাদি।

135 thoughts on “অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি)”

  1. শেখার কোনো শেষ নেই।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।
    আবার বিশ্বসেরা কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন ভিত্তিক কোর্স করার পর সার্টিফিকেটও প্রদান করা হয়। যা যেকোনো চাকরিক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়।
    হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি,ডিউক ইউনিভার্সিটির মতো বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর অনলাইন ভিত্তিক কোর্সের মাধ্যমে সহজেই নিজের অভিজ্ঞতা বাড়ানো যায়।
    অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।

    Reply
  2. শেখার কোন শেষ নেই । অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব। অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশোনা করলে সময় সাশ্রয় সম্ভব। এই আর্টিকেলটিতে এমন দশটি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বলা হয়েছে যেখানে এই কোর্স করার মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করা সম্ভব।জারাব অনলাইনের মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করতে চায় তাদের এই আর্টিকেলটি পড়া উচিত। এই আর্টিকেলটি এই অনেক উপকারী লেখককে অনেক ধন্যবাদ ।

    Reply
  3. প্রযুক্তির অগ্রগতি এবং মানুষের কাছে এর প্রবেশযোগ্যতার সাথে, অনলাইন শিক্ষা, যা ই-লার্নিং নামেও পরিচিত। এছাড়াও, ই-লার্নিং প্রত্যেকের জন্য একটি শিক্ষার বাস্তবতা হয়ে উঠেছে। এই ই-লার্নিং অ্যাপগুলির সাহায্যে, আপনি যে কোনও জায়গা থেকে এবং যে কোনও সময় বিভিন্ন বিষয় সর্ম্পকে দ্রুত জ্ঞান অর্জন করতে পারেন। আপনি একজন ছাত্র হোন বা একজন পেশাদার হোন, আপনার জন্য নির্দিষ্ট জ্ঞান এবং বিশেষ শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রয়োজন হতে পারে যা সবসময় শারীরিকভাবে গ্রহণ করা সম্ভব নয়। বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় কিছু তরুণ উদ্যোক্তাদের দ্বারা শুরু করা ১১টি ফ্রি অনলাইন শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট রয়েছে যাদের ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম, এবং অ্যাপগুলি সার্বক্ষণিক প্রচার করছে এবং শেখার প্রক্রিয়াটিতে সৃজনশীলতা যোগ করছে।

    Reply
    • বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।এই আর্টিকেলটি অনেক উপকারী লেখককে অনেক ধন্যবাদ ।

      Reply
      • শেখার কোন শেষ নেই । অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব। অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশোনা করলে সময় সাশ্রয় সম্ভব। এই আর্টিকেলটিতে এমন দশটি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বলা হয়েছে যেখানে এই কোর্স করার মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করা সম্ভব। বর্তমান সময়ে অনলাইনে ঘরে বসে অনেক কোর্স করে স্বাবলম্বী হওয়া যায়। এই আর্টিকেলটি পরে অনেক কিছু জানতে পারলাম। ধন্যবাদ লেখক কে এত সুন্দর কনটেন্ট লেখার জন্য।

        Reply
  4. শেখার কোনো শেষ নেই।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।এই আর্টিকেলটি এই অনেক উপকারী লেখককে অনেক ধন্যবাদ ।

    Reply

    Reply
  5. বর্তমানের অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনা ও। বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে।
    বাংলাদেশেও অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  6. বর্তমান ডিজিটাল যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর হওয়ায় অনলাইনে শিক্ষা অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ নানান দিক উন্মোচিত হয়েছে, অনলাইনে লেখাপড়ার ফলে ছাত্রছত্রীদের কে যেমনকরে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে জ্ঞানার্জন শেখানো হচ্ছে তার পাশাপাশি অনলাইনে অনলাইনে নানান চাকরীর জন্য নিজেদের প্রস্তত করাও হচ্ছে!।

    বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। যেহেতু আমরা আপনাকে প্রযুক্তির এই বিস্ময়কর বিভাগের অংশ হতে চাই, তাই আমরা উপরের আর্টিকেলে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য পেয়েছি যা একজন শিক্ষার্থীর জন্য যথার্থ!

    Reply
  7. বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব। বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।একজন ছাত্র হোন বা একজন পেশাদার হোন, আপনার জন্য নির্দিষ্ট জ্ঞান এবং বিশেষ শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রয়োজন হতে পারে যা সবসময় ক্লাসে উপস্থিত হয়ে করা সম্ভব নয়। এখন এই বর্তমান সময়ে ই -লার্নিং প্লাটফর্ম গুলো শেখার জন্য একটা মাধ্যম। নিচের লিংকে কিভাবে আপনি যোগ্যতা আারও বাড়াতে পারেন অনলাইন কোর্স এর মাধ্যমে এটাই বুঝানো হয়েছে।

    Reply
  8. বর্তমান ডিজিটাল যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর হওয়ায় অনলাইনে শিক্ষা অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ নানান দিক উন্মোচিত হয়েছে, অনলাইনে লেখাপড়ার ফলে ছাত্রছত্রীদের কে যেমনকরে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে জ্ঞানার্জন শেখানো হচ্ছে।তাছাড়া বর্তমানে অনলাইনে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। লেখককে অনেক ধন্যবাদ এই ধরনের আর্টিকেল লেখার জন্য ।

    Reply
    • বর্তমান সময়ে অনলাইনে ক্লাস করে শিক্ষার্থীরা অনেক উপকারিতা হচ্ছে। তবে সবাই এই সাইটগুলোর নাম জানেনা। এখানে অনলাইন পড়াশোনা সব সাইটগুলো এক জায়গায় করে দিয়ে অনেক উপকার করেছেন।

      Reply
  9. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  10. গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে।বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে যেমন-হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি – ফ্রি অনলাইন ডিগ্রি ও কোর্স,এডএক্স-কোর্সেরা ফ্রি ইউনিভার্সিটি কোর্স,এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার,টেড-এড কোর্সেস ইত্যাদি।উক্ত কন্টেন্টে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ফ্রি ওয়েবসাইটের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

    Reply
    • বর্তমান ডিজিটাল যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর হওয়ায় অনলাইনে শিক্ষা অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ নানান দিক উন্মোচিত হয়েছে।গুগল আর ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য ফ্রী কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে যেমন-হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি – ফ্রি অনলাইন ডিগ্রি ও কোর্স,এডএক্স-কোর্সেরা ফ্রি ইউনিভার্সিটি কোর্স,এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার,টেড-এড কোর্সেস ইত্যাদি।উক্ত কন্টেন্টে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ফ্রি ওয়েবসাইটের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। লেখককে অনেক ধন্যবাদ এই ধরনের আর্টিকেল লেখার জন্য।

      Reply
  11. An excellent and timely presentation.By reading this report, anyone can complete various courses at home through these softwares.

    Reply
  12. গুগল আর ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। বাংলাদেশেও অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। এই কনটেন্টটিতে আন্তর্জাতিক ১০+ অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে যেখানে আপনি বিনামূল্যে কোর্সভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন।

    Reply
  13. বর্তমান যুগ ডিজিটাল যুগ প্রযুক্তি নির্ভর যুগ বা অনলাইনের যুগ । এ যুগে পড়াশোনা করা বা শিখার জন্য প্রিন্টেড বইয়ের জন্য অপেক্ষা করতে হয় না। পড়াশোনা করা বা শিখার জন্য অনলাইন ভিত্তিক বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে পড়াশোনা করা বা শিখা যায়। বাংলাদেশেও অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে থেকে আমরা পড়াশোনা করতে বা শিখতে পারি। এই কন্টেন্টটিতে বাংলাদেশেসহ বিশ্বের জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট আলোচনা করা হয়েছে।যেখানে থেকে আমরা পড়াশোনা করতে বা শিখতে পারব। ইনশাআল্লাহ।

    Reply
  14. অনলাইন থেকে শিক্ষা গ্রহণ বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় একটি বিষয়।
    অনলাইনে পড়ালেখা করতে অভ্যস্ত শিক্ষার্থীদের জন্য খুব সুন্দর একটা গাইড লাইন হতে পারে এই কনটেন্ট টি।
    লেখককে ধন্যবাদ এতো সুন্দর করে প্রতিটা বিষয় বুঝিয়ে উপস্থাপন করার জন্য।

    Reply
  15. লেখক কে ধন্যবাদ জানাই এত সুন্দর করে সহজ ভাষায় অনলাইনে পড়াশোনা করার সঠিক গাইড লাইন তুলে ধরা র জন্য ।

    Reply
  16. In the current digital age, as we depend on online, the important aspects of online education have been exposed, as a result of online education, students are being taught how to acquire knowledge in keeping with the times. In addition, nowadays there is an opportunity to take classes online at the best renowned universities in the world at home, and many of them are free. Many thanks to the author for writing such an article.

    Reply
  17. অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি) নিয়ে লেখাটিতে আলোচনা করা হয়েছে। লেখাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Reply
  18. এক কথায় অসাধারণ! আর্টিকেলটি অত্যন্ত তথ্যবহুল এবং উপকারী। লেখক বাংলাদেশসহ বিশ্বের সেরা অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইটগুলো সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, কোর্সেরা, এবং এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার সহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়। বিনামূল্যে উচ্চমানের শিক্ষা পাওয়ার সুযোগ সম্পর্কে জানতে এই আর্টিকেলটি অত্যন্ত সহায়ক। যারা অনলাইনে পড়াশোনা করতে চান, তাদের জন্য এটি অত্যন্ত উপকারী একটি রিসোর্স। তাই সবাইকে পড়ার পরামর্শ দেব, কারণ এটি জ্ঞান অর্জনের দারুণ একটি মাধ্যম।

    Reply
  19. অনলাইনের মাধ্যমে যে ডিগ্রি অর্জন করা যায় বা শিক্ষা গ্রহণ করা যায় সেটা জানা ছিল না | লেখককে ধন্যবাদ এত গুরুত্বপূর্ণ কিছু দেওয়ার জন্য |

    Reply
  20. বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও। বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশেও অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে।এই কনটেন্ট এর মাধ্যমে লেখক বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য অনেক সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন।

    Reply
  21. বাংলাদেশসহ বিশ্বের সেরা অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইটগুলো সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, কোর্সেরা, এবং এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার সহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়। বিনামূল্যে উচ্চমানের শিক্ষা পাওয়ার সুযোগ সম্পর্কে জানতে এই আর্টিকেলটি অত্যন্ত সহায়ক। যারা অনলাইনে পড়াশোনা করতে চান, তাদের জন্য এটি অত্যন্ত উপকারী একটি রিসোর্স। লেখক কে ধন্যবাদ জানাই এত সুন্দর করে সহজ ভাষায় অনলাইনে পড়াশোনা করার সঠিক গাইড লাইন তুলে ধরা র জন্য ।

    Reply
  22. বর্তমান ডিজিটাল যুগে অনলাইনে শিক্ষা অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ নানান দিক উন্মোচিত হয়েছে। ছাত্রছত্রীদের কে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে জ্ঞানার্জন শেখানো হচ্ছে।
    বাংলাদেশে কিছু জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। উপরের আর্টিকেলে বাংলাদেশের সেরা ১০ টি ফ্রী ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

    Reply
  23. বর্তমান এই যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর।অনলাইনে শিক্ষা অর্জনটা গুরুত্বপূর্ণ ভাবে নানান দিকের দুয়ার খুলেছে, অনলাইনে লেখাপড়ার জন্য ছাত্রছাত্রীরা যেমন তারা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে জ্ঞানার্জন শিখছে তেমনি তার পাশাপাশি অনলাইনে বিভিন্ন চাকুরীর জন্য নিজেদের প্রস্তত করছে।এর জন্য কিছু বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন ভিত্তিক কোর্স করার পর সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।এটি যেকোনো চাকরিক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়।হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি,ডিউক ইউনিভার্সিটির মতো বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর অনলাইন ভিত্তিক কোর্সের মাধ্যমে সহজেই নিজের অভিজ্ঞতা বাড়ানো যায়।বাংলাদেশের ১০ মিনিট স্কুল ও ভালো করছে।বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে।এই আর্টিকেলে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য ও বিস্তারিত সুন্দর করে গুছিয়ে লেখক লিখেছেন,ধন্যবাদ লেখককে।

    Reply
  24. বর্তমান যুগে অনলাইনের মাধ্যমে মানুষ ঘরে বসে সব কিছু করতে পারছে। অনলাইনের মাধ্যমে তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারছে।উপরের আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সেরা দশটি ফ্রি ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে ।আর্টিকেলটি অত্যন্ত সহায়ক যারা অনলাইনে পড়াশোনা করে তাদের জন্য।

    Reply
  25. অনলাইন অধ্যয়ন নমনীয়তা প্রদান করে, যা শিক্ষার্থীদের যেকোন সময় যেকোন স্থান থেকে পাঠ্যক্রম সামগ্রী এবং বক্তৃতা অ্যাক্সেস করতে দেয়। এটি মাল্টিমিডিয়া বিষয়বস্তু এবং ইন্টারেক্টিভ সরঞ্জাম সহ বিভিন্ন শিক্ষার শৈলী পূরণ করে। যাইহোক, ট্র্যাকে থাকার জন্য স্ব-শৃঙ্খলা এবং সময় ব্যবস্থাপনার দক্ষতা প্রয়োজন। ভার্চুয়াল প্রকৃতি কখনও কখনও ঐতিহ্যগত ক্লাসরুম সেটিংসের তুলনায় বিচ্ছিন্নতার অনুভূতির দিকে নিয়ে যেতে পারে।

    Reply
  26. গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। অসংখ্য চ্যানেল ও কোর্সে এর ভিড়ে আমরা অনেক সময় সঠিক কোর্স খুঁজে পাইনা। এই আর্টিকেলটিতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর খুব জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক অনেক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে।

    Reply
  27. অনলাইনে পড়াশোনার ক্ষেত্রে এতো গুলো ফ্রী ওয়েবসাইট আছে আগে জানতামই না। ধন্যবাদ রাইটারকে।

    Reply
  28. ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞান প্রসারিত করতে পারি।অনলাইনের মাধ্যমে আমরা অনেক কিছুর উপর কোর্স করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি ।অসংখ্য স্টুডেন্ট একাডেমিক কোর্স শেষ করে চাকরির সুযোগ পাচ্ছে।বিজনেস এন্ড ইকনোমিকস, ল্যাংগুয়েজ এন্ড লিটারেচার, ম্যাথমেটিকস, ফিলোসফি এন্ড রিজিওন, সোস্যাল স্টাডিজ, টিচিং এন্ড এডুকেশন সহ থাকছে আরো অসংখ্য বিষয়ে জ্ঞানার্জনের সু্যোগ ।উক্ত কন্টেন্টে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ফ্রি ওয়েবসাইটের সুবিধা করা হয়েছে। লেখককে অনেক ধন্যবাদ এই ধরনের আর্টিকেল লেখার জন্য।

    Reply
  29. বর্তমানে এই ডিজিটাল যুগে অনলাইনে বিভিন্ন কার্যক্রমের পাশাপাশি শিক্ষা ব্যবস্থায় ও অনলাইনে অধ্যায়নের সুযোগ তৈরি হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন ভালো ভালো ইউনিভার্সিটি গুলো এখন বিভিন্ন বিষয়ের উপর ফ্রি ওয়েবসাইট চালু করেছে।বাংলাদেশ ও এখন অনলাইনে বিনামূল্যে শিক্ষার অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যার মাধ্যমে আমরা আমাদের জ্ঞানের প্রসারতা আরও বৃদ্ধি করতে পারব। আসলে অনলাইনে বিনামূল্যে ডিগ্রি অর্জন করা যায় এই কন্টেন্টি না পড়লে আমি জানতে পারতাম না।উক্ত কন্টেন্ট এ লেখক বাংলাদেশের কতগুলো ফ্রি শিক্ষার ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেছেন যা সকলের জন্য উপকারী হবে বলে আমি মনে করি। ধন্যবাদ লেখককে বিষয়টি সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার জন্য।

    Reply
  30. যা কিছু শিখছি তা একমাত্র আল্লাহর দেয়া অনুগ্রহ। আর সেই আল্লাহর অনুগ্রহ যদি আমরা বর্ননা করি তাহলে ৭ সমূদ্র যদি কালি হয় এবং সমগ্র জাহানের গাছ-গাছালি যদি কলম হয় তাহলেও আল্লাহর অনুগ্রহ লিখে শেষ করা যাবে না। তাহলে কি বুঝতে পারছি?

    Reply
  31. বর্তমানের এই অনলাইন যুগে আমরা সবাই ঘরে বসে অনেক বিষয়ে অনেক কিছু শিখতে পারছি। বিশেষ করে google এবং youtube ব্যবহার করে আমরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন বড় বড় ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক কোর্সগুলো করতে পারছি। এই কোর্সগুলো বেশিরভাগই ফ্রি এবং কোর্স সম্পূর্ণ করার পরে ভেরিফাইড সার্টিফিকেট দেয়া হয়। তাই একাডেমিক গণ্ডি পার হয়ে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে চাইলে প্রতিটা শিক্ষার্থীর উচিত এই ওয়েবসাইট ভিত্তিক ডিগ্রীগুলো অর্জন করা। এই সার্টিফিকেট গুলো চাকরির ক্ষেত্রেও প্রধান করা যাবে। উপরোক্ত কনটেন্টিতে এই বিষয়ের উপর বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে এবং বিশ্বের ১১ টি ওয়েবসাইটের বর্ণনা করা হয়েছে যা শিক্ষার্থীদের খুবই উপকারে আসবে ইনশাআল্লাহ।

    Reply
  32. অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব। অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশোনা করলে সময় সাশ্রয় সম্ভব। এই আর্টিকেলটিতে এমন দশটি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বলা হয়েছে যেখানে এই কোর্স করার মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করা সম্ভব।যারা অনলাইনের মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করতে চায় তাদের এই আর্টিকেলটি পড়া উচিত। এই আর্টিকেলটি অনেক উপকারী। লেখককে অনেক ধন্যবাদ ।এত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেওয়া জন্য। আমার মত অনেকে ই আছে যারা এই তথ্য গুলো জাননা।যাএই আর্টিকেল থেকে জানলাম। ধন্যবাদ।

    Reply
  33. অনলাইনে পড়াশোনা এখন খুব জনপ্রিয় এবং কার্যকর একটি মাধ্যম হয়ে উঠেছে। ইন্টারনেটের সুবিধা ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন বিষয়ের উপর পড়াশোনা করতে পারেন, যা সময় এবং স্থান নির্বিশেষে সম্ভব। বিজনেস এন্ড ইকনোমিকস, ল্যাংগুয়েজ এন্ড লিটারেচার, ম্যাথমেটিকস, ফিলোসফি এন্ড রিজিওন, সোস্যাল স্টাডিজ, টিচিং এন্ড এডুকেশন সহ থাকছে আরো অসংখ্য বিষয়ে জ্ঞানার্জনের সু্যোগ | অনলাইনে পড়াশোনা কার্যকর করতে উপরে উল্লেখিত কৌশলগুলো অনুসরণ করুন এবং আপনার পছন্দের প্ল্যাটফর্ম থেকে কোর্স নির্বাচন করুন। এতে আপনি নিজের জ্ঞান এবং দক্ষতা উন্নত করতে পারবেন।

    Reply
  34. বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোন প্রান্তে থেকে যেকোন কাজ শিখা সম্ভব। অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশোনা করলে ঘরে বসে পড়াশোনা করা সম্ভব ।বর্তমানে ডিজিটাল যুগে অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন কার্যক্রমের পাশাপাশি শিক্ষা ব্যবস্থা ও অনলাইনে অধ্যয়নের সুযোগ তৈরি হয়েছে। উক্ত কনটেন্ট এ লেখক বাংলাদেশের কতগুলো অনলাইনে ফ্রি শিক্ষার ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করেছে যা সকলের জন্য অনেক উপকারী ধন্যবাদ লেখক কে এত সুন্দর কন্টেনটি তৈরি করার জন্য।

    Reply
  35. বর্তমান এই যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর।বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে।এই আর্টিকেলটিতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর খুব জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক অনেক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে।

    Reply
  36. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম রয়েছে, যেমন ১০ মিনিট স্কুল। গুগল ও ইউটিউবের মাধ্যমে জ্ঞান অর্জনের সুযোগ বাড়ছে, তবে বিষয়ভিত্তিক কোর্স ঘরে বসে একাডেমিক জ্ঞান বাড়াতে সহায়ক। আন্তর্জাতিকভাবে জনপ্রিয় ১০+ প্ল্যাটফর্মে বিনামূল্যে কোর্সভিত্তিক শিক্ষা নেওয়া যায়।

    Reply
  37. বর্তমান এই যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর।বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে।এই আর্টিকেলটিতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর খুব জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক অনেক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে।

    Reply
  38. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। তাছাড়া অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট পড়ার মাধ্যমে আরো অনেক কিছু সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে। ওপরের কন্টেনটি আমাদের সবার জন্য অনেক উপকারী। লেখককে অসংখ ধন্যবাদ এমন একটি কনটেন্ট সবার মাঝে নিয়ে আসার জন্য।

    Reply
  39. অনলাইনে পড়াশোনা করার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে যার বিভিন্ন বিষয়ে এবং শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদের জন্য উপযোগী।গুগল এবং ইউটিউব এর বদলাতে আমাদের তথ্য জ্ঞান অর্জনেরপরিধি দিন দিন বেড়েই চলছে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে ঘরে বসে একাডেমিক জ্ঞান অর্জন করা যায় যেমন বাংলাদেশের ১০ মিনিট স্কুল অনেক ভালো কাজ করছে।এছাড়া অনলাইনে পড়াশোনা করার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে। অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট শিরোনামে আর্টিকেলটি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

    Reply
  40. কথায় আছে, শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। যে জাতি যতো বেশি সুশিক্ষিত সে জাতি ততো বেশি উন্নত। বর্তমান প্রযুক্তির যুগে সারা বিশ্বে ঘরে বসে মানুষ অনলাইনে স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করছে। বাংলাদেশ ও এর ব্যতিক্রম নয়। অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে। যেমন-হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি ফ্রী অনলাইন ডিগ্রি এবং কোর্স, এডএক্স, লিন্ডা, ও ইউডেমি ইত্যাদি। তাই আমাদের দেশের ছেলেমেয়েদের উচিত ঘরে বসে অনলাইনে বাজে কাজে সময় নষ্ট না করে জ্ঞান অর্জন করা।

    Reply
  41. বর্তমান যুগ প্রযুক্তি নির্ভর যুগ। এ যুগে অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোন প্রান্তে থেকে যেকোন কাজ শিখা সম্ভব।গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষ্যযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো ঘরে বসেই আমরা ফ্রিতে সম্পন্ন করতে পারি এবং পৃথিবীর সেরা বিশ্ববিদ্যালয় গুলো থেকে সার্টিফিকেটও নিতে পারি। এ আর্টিকেলটিতে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি) সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। ধন্যবাদ লেখককে। এ আর্টিকেলটি পড়ে সবাই উপকৃত হবে।

    Reply
  42. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে।জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তবে ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।মজার ব্যাপার হচ্ছে, বিশ্বের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে বিনামূল্যে শেখানো হচ্ছে যার মূল লক্ষ্যই হল বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে সবার জন্য ওয়ার্ল্ড ক্লাস এডুকেশন নিশ্চিত করা।উক্ত আর্টিকেলটিতে খুবই জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে।

    Reply
  43. অনলাইনে পড়াশোনা এখন খুব জনপ্রিয় এবং কার্যকর একটি মাধ্যম হয়ে উঠেছে। ইন্টারনেটের সুবিধা ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন বিষয়ের উপর পড়াশোনা করতে পারেন, যা সময় এবং স্থান নির্বিশেষে সম্ভব।যারা আইনি পরাশোনা করতে চান তাদের জন্য এই কন্টেন্টি অনেক প্রয়োজনীয়

    Reply
  44. একজন ছাত্র হোন বা একজন পেশাদার হোন, আপনার জন্য নির্দিষ্ট জ্ঞান এবং বিশেষ শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রয়োজন হতে পারে যা সবসময় ক্লাসে উপস্থিত হয়ে করা সম্ভব নয়। এখন এই বর্তমান সময়ে ই -লার্নিং প্লাটফর্ম গুলো শেখার জন্য একটা মাধ্যম। নিচের লিংকে কিভাবে আপনি যোগ্যতা আারও বাড়াতে পারেন অনলাইন কোর্স এর মাধ্যমে এটাই বুঝানো হয়েছে।

    Reply
  45. বর্তমান সময়ে অনলাইনে পড়াশোনা এখন খুব জনপ্রিয় এবং কার্যকর একটি মাধ্যম । ইন্টারনেটের সুবিধা ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন বিষয়ের উপর পড়াশোনা করতে পারেন, যা সময় এবং স্থান নির্বিশেষে সম্ভব। অনলাইনে পড়াশোনা কার্যকর করতে উপরে উল্লেখিত কৌশলগুলো অনুসরণ করুন এবং আপনার পছন্দের প্ল্যাটফর্ম থেকে কোর্স নির্বাচন করুন। এতে আপনি নিজের জ্ঞান এবং দক্ষতা উন্নত করতে পারবেন। যারা অনলাইনে পড়াশোনা করতে চান তাদের জন্য এই কন্টেন্টি অনেক প্রয়োজনীয়

    Reply
  46. অনলাইন শিক্ষার ক্রমবর্ধমান চাহিদা বেরেই চলেছে পাশাপাশি অনলাইন শিক্ষাদানেরও জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে। গুগল এবং ইউটিউবের জন্য এই কার্যকর অনলাইন শিক্ষণ কোর্সগুলো সহজলভ্য হয়ে উঠেছে। এই শিক্ষন এর উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হলো বিনামূল্যে বিষয় ভিত্তিক কোর্সগুলো করা যায়। এই আর্টিকেলে আমরা অনলাইন শিক্ষা প্রদান করে এমন ১০টি কার্যকরী প্লাটফর্ম সম্পর্কে জানতে পারবো। যা শিক্ষার্থীদের জন্য খুবই উপকারী হবে।

    Reply
  47. বর্তমান ডিজাটালাইজেশনের যুগে অনলাইন শিক্ষা ব্যাপক জনপ্রিয়তা অরঅর্জন করেছে।বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। যেহেতু আমরা আপনাকে প্রযুক্তির এই বিস্ময়কর বিভাগের অংশ হতে চাই, আমরা নীচে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করছি।

    গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।

    বাংলাদেশে ১০টি অনলাইন শিক্ষার কার্যকরি প্লাটফর্ম সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দিতে আজ আপনাদের সামনে কন্টেন্টটি উপস্থাপন করলাম।

    Reply
  48. বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে।এ কন্টেন্টটিতে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি) সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।লেখককে ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি কন্টেন্ট লিখার জন্য।

    Reply
  49. বর্তমানে ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে জ্ঞান অর্জন করার সুযোগ রয়েছে।এটি একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হিসেবে দাঁড়িয়েছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষ্যযুক্ত।আর্টিকেলটিতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর খুব জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক অনেক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে।লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি কন্টেন আমাদের মাঝে তুলে ধরার জন্য।

    Reply
  50. বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও।ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়। প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।

    Reply
  51. বর্তমান তথ্য প্রযুক্তির যুগে গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে।বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে।এই আর্টিকেলটিতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর খুব জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক অনেক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে।উক্ত কন্টেন্টে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ফ্রি ওয়েবসাইটের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

    Reply
  52. নিজের শিক্ষার উন্নতির জন্য অনেক শিক্ষার্থী অনলাইন কোর্স করতে চাই। কিন্তু, বুঝতে পারে না যে, কোন ওয়েবসাইটটি তার জন্য ভালো হবে। এই কনটেন্টটি এই সমস্যার সমাধান।পড়াশোনার জন্য সেরা দশটি ওয়েবসাইট (ফ্রি) এর কথা বলা হয়েছে এই কনটেন্টে।এই কনটেন্টে প্রতিটি ওয়েবসাইটের বিভিন্ন বিষয়গুলো ভিন্ন ভিন্ন স্তর দ্বারা তুলে ধরা হয়েছে। এই প্রয়োজনীয় কনটেন্ট টি লেখার জন্য লেখক কে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Reply
  53. আসসালামু আলাইকুম, বর্তমান প্রযুক্তির উৎকর্ষতার একটি উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে অনলাইনে পড়াশোনা। আপনি একজন ছাত্র হোন বা একজন পেশাদার হোন, আপনার জন্য নির্দিষ্ট জ্ঞান এবং বিশেষ শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রয়োজন হতে পারে যা সবসময় ক্লাসে উপস্থিত হয়ে করা সম্ভব নয়। এখন এই বর্তমান সময়ে ই -লার্নিং প্লাটফর্ম গুলো শেখার জন্য একটা মাধ্যম। নিচের লিংকে কিভাবে আপনি যোগ্যতা আারও বাড়াতে পারেন অনলাইন কোর্স এর মাধ্যমে এটাই বুঝানো হয়েছে এবং পড়াশোনার জন্য সেরা দশটি ওয়েবসাইট (ফ্রি) এর কথা বলা হয়েছে এই কনটেন্টে।এই কনটেন্টে প্রতিটি ওয়েবসাইটের বিভিন্ন বিষয়গুলো ভিন্ন ভিন্ন স্তর দ্বারা তুলে ধরা হয়েছে। এই প্রয়োজনীয় কনটেন্ট টি লেখার জন্য লেখক কে অসংখ্য ধন্যবাদ।আপনারা পড়তে পারেন 👎

    Reply
  54. বর্তমান তথ্য প্রযুক্তির যুগে বিশ্ব যেন হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা আজকে ঘরে বসেই অনলাইন ব্যবহার করে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র আয়সহ পড়াশুনার মতো গুরুত্বপূর্ণ কোর্স বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সম্পন্ন করতে পারছি।উপরোক্ত আর্টিকেলটি অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যসমূহ তুলে ধরা হয়েছে। যা পড়ে অনেক অজানা বিষয় জ্ঞান অর্জন হবে এবং অনেকেই উপকৃত হবেন ইনশাআল্লাহ।

    Reply
  55. আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে দেশে পড়ালেখা শেষ করে, টাকার অভাবে বাইরের দেশে গিয়ে লেখাপড়া করা সম্ভব হয় না।
    তাদের জন্য বর্তমান অনলাইন প্লাটফর্ম টা অনেক উপকারী।
    তারা ইচ্ছে করলে দেশে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি হয়ে, সার্টিফিকেট অর্জন কর পারে।
    আর তাই এত সুন্দর একটি কনটেন্ট আমাদেরকে উপহার দেওয়ার জন্য।
    না জানা তথ্যগুলোকে আমাদের কাছে তুলে ধরার জন্য লেখককে অনেক ধন্যবাদ।
    এটি পড়ে অনেক কিছু জানতে পারলাম আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন ইনশাআল্লাহ।

    Reply
  56. বর্তমান যুগ প্রযুক্তি নির্ভর। প্রযুক্তির সহায়তায় আমরা ঘরে বসে অনেক কিছু অর্জন করতে পারি ।তার মধ্যে শিক্ষা অন্যতম। অনেক ওয়েবসাইট আছে যেগুলো আমরা ঘরে বসে অনায়াসে কোর্স করতে পারি এবং সার্টিফিকেট নিতে পারি সেটা দেশি-বিদেশি প্ল্যাটফর্ম থেকে। প্রয়োজনে এই সার্টিফিকেট গুলো আমরা চাকরির ক্ষেত্রেও ব্যবহার করতে পারি। উক্ত আর্টিকেলটিতে অনলাইনে কোর্স করার কিছু ওয়েবসাইট উল্লেখ করা হয়েছে ।আমরা যারা কোর্স করতে আগ্রহী বা ডিগ্রি অর্জন করতে চাই তাদের জন্য আর্টিকেলটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ্।

    Reply
  57. নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবন এবং ইন্টারনেট সুবিধার কারণে শ্রেণিকক্ষের বিকল্প হিসেবে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যেন বিশ্বব্যাপী শিক্ষার্থীদের জন্য আশীর্বাদ হয়ে এসেছে। ক্যারিয়ারে নতুন নতুন দক্ষতা অর্জন থেকে শখ পূরণ; সব ক্ষেত্রেই বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে শেখার বিষয়টি অনেক সহজ করে দিয়েছে অনলাইন প্ল্যাটফর্মের বিভিন্ন কোর্স। লেখককে ধন্যবাদ জানাই অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শেয়ার করার জন্য।

    Reply
  58. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  59. বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও।বর্তমানে প্রযুক্তির ব্যবহার করে ইচ্ছে করলে দেশে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি হয়ে,পড়াশোনা করে সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারি। আর তাই লেখক কন্টেন্ট এ ১০ টি প্লাটফর্ম এর কথা বলেছেন যা সম্পুর্ণ ফ্। লেখক কে অনেক ধন্যবাদ এই উপকারী কন্টেন্ট লেখার জন্য এটা আমাদের শিক্ষার্থী ভাই বোনদের উপকারে আসবে ইংশাআল্লাহ।

    Reply
  60. অনলাইনে এখন খুব সহজে এবং স্বল্প সময়ে পছন্দ মতো বিষয়ে ধারণা নেয়া যায়। কলম-কাগজ ভিত্তিক শিক্ষা থেকে অনলাইন শিক্ষার এই দৃষ্টান্ত পরিবর্তনের প্রধান কারণ হিসেবে ডিজিটালাইজেশনকে বিবেচনা করা যেতে পারে। ইন্টারনেটে প্রচুর ওয়েবসাইট রয়েছে যা বিদ্যমান শিক্ষাব্যবস্থার জ্ঞানের শূন্যতা সহজেই পূরণ করছে।

    Reply
  61. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা জন্য লেখককে ধন্যবাদ

    Reply
  62. সভ্যতার অগ্রগতির সাথে মিল রেখে এগিয়ে যাচ্ছে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা। প্রযুক্তির সাথে বর্তমানে সবাই কম বেশি পরিচিত। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অনলাইন ও জ্ঞান অর্জনের একটি জনপ্রিয় মাধ্যম।

    Reply
  63. বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।

    Reply
  64. বিশ্বায়নের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের কে প্রতিনিয়ত জ্ঞান অর্জন করতে হয়।
    এ জ্ঞান অর্জনের জন্য শুধু বইয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলে হবে না, প্রয়োজন অনলাইন ভিত্তিক পড়াশোনা করা। অনলাইন ভিত্তিক পড়াশোনার জন্য আমাদের দেশ সহ দেশের বাহিরে বেশ কিছু জনপ্রিয় মাধ্যম রয়েছে।

    Reply
  65. ডিজিটাল যুগের পড়াশোনাও ডিজিটাল হবে এটাই স্বাভাবিক। বর্তমান যুগ প্রযুক্তি নির্রভর হওয়ার সুবাদে অন্যান্য সুযোগ সুবিধার মতো পড়াশোনাও এখন দোরগোড়ায় পেয়ে যাচ্ছি। এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে অনায়সে ঘরে বসে কোর্স করতে পারি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এবং সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারি। যা আমাদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে এবং চাকরি ,ব্যবসা সহ নানা ধরনের কাজে ব্যবহার করতে পারবো । এই আর্টিকেলে ১০টি পড়াশোনা করার ওয়েবসাইট এর কথা বলা হয়েছে যা আমাদের জন্য অনেক বেশি উপকারী ভূমিকা পালন করবে। কন্টেন্ট লেখক কে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Reply
  66. কথায় আছে ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়। বর্তমান ডিজিটাল যুগে তো এই বাক্য পুরোপুরি বাস্তবতায় পরিণত হয়েছে। এখন একজন ইচ্ছা করলে ই কষ্ট করে দূরে গিয়ে টাকা খরচ না করে ঘরে বসে অনলাইনে বিনা মূল্যে নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কোর্স করে জ্ঞান অর্জন এর পাশাপাশি সার্টিফিকেট পেতে পারে। এর চেয়ে বড় সুবিধা আর কি চাই। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ও বুঝতে কনটেন্ট টি পড়ুন।

    Reply
  67. বাংলাদেশে অনলাইন শিক্ষার প্রস্তুতি বেড়ে চলছে যার মধ্যে গুগল এবং ইউটিউব অগ্রগতিতে প্রধান ভূমিকা রয়েছে। এই প্লাটফর্মগুলির মাধ্যমে প্রায় সমস্ত বিষয়ের কোর্স অনলাইনে অনুপ্রাণিত পরিচালনা করা হচ্ছে, যা একজন শিক্ষার্থীর জন্য বিনামূল্যে পাঠক্রম অনুসরণ করার সুযোগ প্রদান করে। উল্লিখিত ওয়েবসাইটগুলি দ্বারা প্রদত্ত শিক্ষা উচ্চমানের একাডেমিক জ্ঞান উন্নতির মাধ্যমে দেশের জনগণের জ্ঞান প্রসারে অবদান রাখছে। এমন গুরুত্বপূর্ন কনটেন্ট এর জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  68. Whether you’re a student or a professional, there are certain knowledge and specialized training courses that may not always be feasible to attend in person. In today’s era, we all aspire to be part of the awe-inspiring realm of technology. To brush up our academic knowledge from the comfort of home and further extend our expertise, numerous e-learning platforms have emerged. There are 10 free online learning mediums mentioned in the content:

    Reply
  69. গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।এর চেয়ে বড় সুবিধা আর কি চাই। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ও বুঝতে কনটেন্ট টি পড়ুন।

    Reply
  70. এখন অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই পড়াশোনা করা যাচ্ছে।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের জ্ঞান বাড়ানো যায়।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি পড়লে এই সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।এই আর্টিকেলটি স্টুডেন্টদের জন্য অনেক উপকারী। লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  71. দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত শিক্ষার শেষ নেই। আর তা যদি হয় অনলাইনে তাহলে তো কাজে লাগিয়ে খুব ভালো ফলাফল পাওয়া সম্ভব।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি) নিয়ে লেখাটিতে আলোচনা করা হয়েছে। লেখাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সবার জন‍্য। পড়লে আপনারও উপকারে আসতে পারে।

    Reply
  72. দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত শিক্ষার শেষ নেই। আর তা যদি হয় অনলাইনে তাহলে তো কাজে লাগিয়ে খুব ভালো ফলাফল পাওয়া সম্ভব। লেখাটি পড়ে দেখবেন আপনারও উপকারে আসতে পারে।

    Reply
  73. গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। সবাই একন্টেনটি পড়ে উপকৃত হবেন আমরা ঘরে বসে অনেক গুলো কোর্স করতে পারি চলুন কন্টেন্টটি পড়ে জেনে নি।

    Reply
  74. প্রযুক্তির উন্নয়নে পড়ালেখা এখন একটি নির্দিষ্ট গন্ডির মধ‍্যে সীমাবদ্ধ নেই। এটি এখন সার্বজনীন ও বিশ্বব‍্যপী ছড়িয়ে পড়ছে। অনলাইন ভিত্তিক একাডেমিক কোর্স এখন অত‍্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। অনলাইনের মাধ‍্যমে বিশ্বের বিভিন্ন নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্স করার সূযোগ তৈরী হয়েছে। এই কন্টেন্ট টিতে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশাকরি এটি শিক্ষার্থীদের ভালো গাইড লাইন হবে।

    Reply
  75. আসসালামু আলাইকুম,
    অনলাইন শিক্ষা বর্তমানে মানুষকে সফলতার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিতে পারে। যদি কোনো মানুষের অদম্য আগ্রহ থাকে। বিশ্বের বড়ো বড়ো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফ্রী অথবা নাম মাত্র মুল্যে অনলাইন কোর্স করে সার্টিফিকেট অর্জন করা সম্ভব। কাজেই আমাদের উচিত এই অনলাইন সেবাগুলো কাজে লাগিয়ে নিজেকে সাফল্যমন্ডিত করা।সেজন্য এই অনলাইন সেবাগুলো সম্পর্কে সঠিকভাবে জানা প্রয়োজন। আলহামদুলিল্লাহ লেখক এই কন্টেন্টটিতে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েব সাইট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেছেন, যা আমাদের জন্য খুব উপকারী ভুমিকা রাখবে, ইনশাআল্লাহ।

    Reply
  76. আধুনিক, যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও জ্ঞান অর্জন করা। সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু করতে পারবো। বতর্মানে ঘরে বসে আমরা অনেক কিছু শিক্ষতে পারি।

    Reply
  77. অনলাইন পড়াশোনা হলো এমন একটি শিক্ষাব্যবস্থা যেখানে শিক্ষার্থীরা ইন্টারনেট ব্যবহার করে বিভিন্ন কোর্স এবং শিক্ষা উপকরণে অ্যাক্সেস পায়। এটি সাধারণত ভার্চুয়াল ক্লাসরুম, ভিডিও লেকচার, ই-লানিং প্ল্যাটফর্ম এবং অনলাইন পরীক্ষার মাধ্যমে পরিচালিত হয়।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে।ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের জ্ঞান বাড়ানো যায়।উপরের আর্টিকেলে বাংলাদেশের সেরা ১০ টি ফ্রী ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

    Reply
  78. বিশ্বায়নের এই যুগে পুরো পৃথিবী এখন আমাদের হাতের মুঠোয়। যে কেউ চাইলে ঘরে বসে জ্ঞান অর্জন করতে পারে। উন্নত দেশের যে সব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা আমাদের জন্য স্বপ্ন ছিল, সেইসব বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘরে বসে আমরা অনলাইনে কোর্স করতে পারছি।অনেক কিছু শিখতে পারছি।চাকুরির পড়াশোনা ও এখন অনলাইনে করা যাচ্ছে। অনলাইন ভিত্তিক ক্লাসগুলো এখন অনেক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। বিশ্বের বড় বড় অনলাইন ভিত্তিক ক্লাসগুলো ফ্রী করাচ্ছে। এর ফলে অনেকে উপকৃত হচ্ছে।

    Reply
  79. বর্তমান অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনা ও জ্ঞান অর্জন করা। ইন্টারনেটের মাধ্যমে সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। এই আর্টিকেলটিতে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইটের কথা বলা হয়েছে যেখান থেকে ঘরে বসেই বিনামূল্যে বিশ্বের নামকরা প্রতিষ্ঠান থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কোর্স করা যেতে পারে। আশাকরি এটি শিক্ষার্থীদের জন্য ভালো গাইডলাইন হবে এবং তারা উপকৃত হবে

    Reply
  80. শেখার কোন শেষ নেই । অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব।এই আর্টিকেলে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য ও বিস্তারিত সুন্দর করে গুছিয়ে লেখক লিখেছেন,ধন্যবাদ লেখককে।

    Reply
  81. বাংলাদেশে শীর্ষ স্থানীয় কিছু তরুণ উদ্যোক্তাদের দ্বারা শুরু করা ১১ টি ফ্রী অনলাইন শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট রয়েছে। যাদের ই লার্নিং প্ল্যাটফর্ম অ্যাপগুলি সার্বক্ষণিক প্রচার করছে ।বর্তমানে অনলাইন যুগের ঘরে বসেই প্রযুক্তির বদৌলতে নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক শিক্ষা এবং বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে দ্রুত জ্ঞান অর্জন করা যায। বাংলাদেশে টেন মিনিট স্কুল অনেক ভালো কাজ করছে এই লার্নিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে যেখানে আপনি বিনামূল্যে কোর্স ভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করতে পারেন। বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজের সাথে এক জোট হয়ে প্রায় ১০০ টির মত কোর্স নিজেদের সাইটে যুক্ত করেছে কোর্সেরা।

    Reply
  82. বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে।হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি,ডিউক ইউনিভার্সিটির মতো বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর অনলাইন ভিত্তিক কোর্সগুলো করার মাধ্যমে সহজেই নিজের অভিজ্ঞতা বাড়ানো যায়।এই আর্টিকেলটিতে এমন দশটি ওয়েবসাইট সম্পর্কে বলা হয়েছে যেখানে এই কোর্স করার মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করা সম্ভব।

    Reply
  83. দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত শিক্ষাজীবন। সারা বিশ্বে অনলাইন শিক্ষার প্রস্তুতি বেড়ে চলছে যার মধ্যে গুগল এবং ইউটিউব অগ্রগতিতে প্রধান ভূমিকা রয়েছে। এই প্লাটফর্মগুলির মাধ্যমে প্রায় সকল বিষয়ের কোর্স অনলাইনের মাধ্যমে পরিচালনা করা হচ্ছে, যা একজন শিক্ষার্থীর জন্য ঘরে বসে বিনামূল্যে পাঠক্রম অনুসরণ করার সুযোগ প্রদান করে।

    অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা এই ১০ টি ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Reply
  84. বর্তমান প্রযুক্তির এতটা আগ্রগতি হয়েছে যে আমরা চাইলে এখন ঘরে বসেই বিশ্বসেরা ইউনিভারসিটি গুলো থেকে সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারি। বাংলাদেশে শীর্ষ স্থানীয় কিছু তরুণ উদ্যোক্তাদের এক সাহসী উদ্যোগ এর মাধ্যমে আমরা বেশ কিছু অনলাইন প্লাটফর্ম পেয়েছি। বাংলাদেশে টেন মিনিট স্কুল অনেক ভালো কাজ করছে এই লার্নিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে যেখানে আপনি বিনামূল্যে কোর্স ভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করতে পারেন। বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজের সাথে এক জোট হয়ে প্রায় ১০০ টির মত কোর্স নিজেদের সাইটে যুক্ত করেছে কোর্সটিতে। এছাড়াও এই কনটেন্টটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা হয়েছে। আশা করি কনটেন্টটি পড়ার মাধ্যমে অনেক উপকার পাওয়া যাবে।

    Reply
  85. বিশ্বায়নের এই যুগে পুরো পৃথিবী এখন আমাদের হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। যার বদৌলতে শিক্ষার্থীরা ইন্টারনেট ব্যবহার করে বিভিন্ন কোর্স কমপ্লিট করে জ্ঞান অর্জন করছে । এটি সাধারণত ভার্চুয়াল ক্লাসরুম, ভিডিও লেকচার, ই-লানিং প্ল্যাটফর্ম এবং অনলাইন পরীক্ষার মাধ্যমে পরিচালিত হয় এবং যেগুলো অধিকাংশ ই বিনামূল্যে।হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি,ডিউক ইউনিভার্সিটির মতো বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর অনলাইন ভিত্তিক কোর্সগুলো করার মাধ্যমে সহজেই নিজের অভিজ্ঞতা বাড়ানো যায়।বাংলাদেশে ও ১১ টি ফ্রী অনলাইন শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট রয়েছে। টেন মিনিট স্কুল এর মধ্যে অন্যতম।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা এই ১০ টি ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Reply
  86. বর্তমানসময়ে অনলাইনে ক্লাস করে অনেকে অনেকিছু সিটকতে পেরেচে তবেঁ এই সাইট গুলোর নাম অনেকেই জানেনা লেক্কে অনেক দন্ত বাদ এত সুন্দর একটি কনটেন্ট আমাদের সামনে তুলে দরার জন্য

    Reply
  87. জ্ঞানের সীমা ব্যাপক করতে পড়াশোনার বিকল্প নেই। আর তা যদি হয় অনলাইনে তাহলে বিষয়টি আরো সহজ করে দেয় আমাদের। ফ্রি হলে সেটা সবার জন্যই ভালো। লেখককে অনেক ধন্যবাদ এমন একটি কন্টেন্ট লিখার জন্য।

    Reply
  88. এখন আর আগের মত পড়াশোনা শুধু বইয়ের পৃষ্ঠায় সীমাবদ্ধ নেই। তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে পড়াশোনা ও এখন অনলাইন ভিত্তিক হয়েছে। যারা ফলে অনেক শিক্ষার্থী এখন অনলাইন এ কোর্স এর মাধ্যমে প্রচুর জ্ঞান অর্জন করছে। এ পোস্ট এ এরকম ১০ টি অনলাইন ভিত্তিক শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট এর উল্লেখ করছেন লেখক। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটি,ডিউক ইউনিভার্সিটির মতো বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর অনলাইন ভিত্তিক কোর্সের মাধ্যমে সহজেই নিজের অভিজ্ঞতা বাড়ানো যায়।বাংলাদেশের ১০ মিনিট স্কুল ও ভালো করছে।বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে।বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের সাথে এক জোট হয়ে প্রায় ১০০ টির মত কোর্স নিজেদের সাইটে যুক্ত করেছে।

    কনটেন্টটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা হয়েছে। তাই যারা অনলাইন থেকে শিখতে আগ্রহী তারা আশা করি কনটেন্টটি পড়ার মাধ্যমে অনেক উপকার পাওয়া পাবে।

    Reply
  89. শেখার কোন শেষ নাই। অনলাইনের মধ্যেমে পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত থেকে যেকোনো কিছু শেখা সম্ভব। বর্তমানে অনলাইনের যুগে ঘরে বসেই অনেক কিছু করা সম্ভব হচ্ছে, এমনকি পড়াশোনাও।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট ফ্রি।শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা গেলো।এই আর্টিকেলটি অনেক উপকারী।

    Reply
  90. বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে পড়াশোনা করা যায়। কিছু প্ল্যাটফর্মে কোর্স সম্পন্ন করার পর সার্টিফিকেটও প্রদান করা হয়,যা চাকরিক্ষেত্রেও ব্যবহার উপযোগী।এখানে ১০টি ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে যার মাধ্যমে অসংখ্য বিষয়ে জ্ঞানার্জন সম্ভব।

    Reply
  91. বর্তমানে অনলাইন হয়ে ওঠেছে শিক্ষাপ্রাঙ্গন।অনলাইনে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে পড়াশোনা করা যায়, কোর্স করা যায়। বাংলাদেশের এমন অনেক ওয়েবসাইটের সাথে আমরা পরিচিত এবং সেবা ও নিচ্ছি। আন্তর্জাতিক ওয়েবসাইট গুলো সম্পর্কে সবাই জানে না, আমি নিজেও জানি না।
    ধন্যবাদ এরকম একটা কনটেন্ট লিখার জন্য।

    Reply
  92. আলহামদুলিল্লাহ , শিক্ষা ব্যবস্হা এখন শুধু পাঠ্যপুস্তকে বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সীমাবদ্ধ নেই। অনলাইন ভিত্তক শিক্ষাব্যবস্হা চালু হওয়ায় এখন মানুষ ঘরে বসে শিক্ষা গ্রহন করতে পারে এবং সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারে। কনটেন্ট টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ তথ্যবহুল।আশা করি অনেকেরই উপকারে আসবে।

    Reply
  93. বর্তমানে অনলাইনে পড়াশোনা করার বিষয়টি সবচেয়ে জনপ্রিয়। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ভাবে অনলাইনে পড়াশোনা করে।এত গুলো ওয়েবসাইটে ফ্রিতে পড়াশোনা করা যায় এটা আগে যানা ছিল না। ধন্যবাদ জানাই লেখককে এত সুন্দর একটি কন্টেন্ট তৈরি করার জন্য।

    Reply
  94. একজন ছাত্র বা একজন পেশাদার , যেই হোন না কেন , আপনার জন্য নির্দিষ্ট জ্ঞান এবং বিশেষ শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রয়োজন হতে পারে যা সবসময় ক্লাসে উপস্থিত হয়ে করা সম্ভব নয়। গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে । এখন, অনলাইনে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  95. বর্তমানে প্রযুক্তির এই যুগে জ্ঞান অর্জন করা খুবই সহজ। অনলাইনে আমরা অযথাই সময় নষ্ট করি।কিন্তু অনলাইনে আমরা চাইলে সহজেই ফ্রি-তে বিভিন্ন স্কিল অর্জন করতে পারি। এরকমই অনলাইনে জনপ্রিয় অনেক ওয়েবসাইট আছে যেখানে আমরা চাইলে ফ্রি-তে জ্ঞান অর্জন করে নিজেকে যোগ্য বানিয়ে তুলতে পারি। এখানে ফ্রী দশটি ওয়েবসাইট দেওয়া হয়েছে যেখান থেকে আপনি চাইলে সহজেই শিখতে পারবেন।

    Reply
  96. আপনার আর্টিকেলটি খুবই তথ্যবহুল এবং অনুপ্রেরণাদায়ক। বর্তমান ডিজিটাল যুগে অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ ও এর উপকারিতা সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। হার্ভার্ড, স্ট্যানফোর্ড, ডিউক ইউনিভার্সিটির মতো শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অনলাইন কোর্স সম্পর্কে জানা সত্যিই আশ্চর্যজনক। ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্মের সুবিধা, সহজলভ্যতা, এবং শিক্ষার প্রচারে এটি যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে তা চমৎকারভাবে তুলে ধরা হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্মগুলোর উল্লেখ বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। আপনার লেখাটি বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ শিক্ষার্থীদের জন্য অত্যন্ত সহায়ক হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আপনার প্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ।

    Reply
  97. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। এমনকি পড়াশোনাও। বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশেও অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। এই কনটেন্ট এ বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ১০টি অনলাইন শিক্ষা ওয়েবসাইট তথা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য অনেক সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। ধন্যবাদ লেখক কে এমন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার জন্য।

    Reply

    Reply
  98. আসসালামুআলাইকুম বর্তমান সময়ে অনলাইনে ক্লাস করে শিক্ষার্থীরা অনেক উপকারিতা হচ্ছে। তবে সবাই এই সাইটগুলোর নাম জানেনা। এখানে অনলাইন পড়াশোনা সব সাইটগুলো এক জায়গায় করে দিয়ে অনেক উপকার করেছেন। বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করার জন্য লেখককে জানাই ধন্যবাদ।

    Reply
  99. বাংলাদেশ অনেক জনপ্রিয় শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। প্রযুক্তির এই প্রজন্মে, মানুষ এখন ঘরে বসে, বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে বিষয়ভিত্তিক অনেক কিছু শিখতে পারছে। ইন্টারনেটে এমন অনেক কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে মানুষ নিজের জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে পারে। অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ টি ওয়েবসাইট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরা হয়েছে এই আর্টিকেলটিতে।

    Reply
  100. কোভিড -১৯ এর পূর্বে আমাদের মত উন্নয়নশীল দেশে অনলাইন ভিত্তিক পড়াশোনার তেমন কোন প্লাটফর্ম ছিলো না। কোভিড-১৯ চলাকালীন সময় থেকে শুরু হওয়া অনলাইন পড়াশোনা এখন খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশ সহ অনেক দেশে এখন পড়াশোনার জনপ্রিয় মাধ্যম অনলাইনে পড়াশোনা।এটার ফলে সিলেবাসের বাইরের গন্ডি পার হয়েও বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক পড়াশোনা করা যায় সম্পূর্ণ ফ্রিতে।
    উক্ত লেখাটি পড়লে আরো বিস্তারিত জানা যাবে আশা করি।

    Reply
  101. বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য।

    Reply
  102. এক কথায় অসাধারণ! অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ওয়েবসাইট (ফ্রি) নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। লেখাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। লেখক বাংলাদেশসহ বিশ্বের সেরা অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইটগুলো সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন।

    Reply
  103. পড়াশোনার কোনো বয়স আবার কোনো শেষ ও নেই। বর্তমান এই যুগে আমরা অনলাইন নির্ভর। অনলাইলের সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো যে কোনো জায়গা থেকে।সব বয়সের মানুষ বিশ্বের অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ দ্বারা পরিচালিত অধিকাংশ কোর্সগুলোই বর্তমানে অনলাইনে বিনামূল্যে শিখতে পারছে।এই আর্টিকেলটিতে বিভিন্ন বিষয়ের উপর খুব জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইটের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যা আমাদের অনলাইনে বিষয়ভিত্তিক অনেক জ্ঞান বৃদ্ধি করবে। পাশাপাশি কোন কোন সাইটে কিভাবে অনলাইনে পড়াশোনা করা যায় তার সঠিক জানা যাবে।

    Reply
  104. আমাদের সবারই একটা ইচ্ছা থাকে ভালো কোনো বিশ্ববিদ্যালয় পড়াশোনা করতে। কিন্তু বর্তমানে এই ইচ্ছে টা পূরন হচ্ছে অনলাইন বিভিন্ন ফ্রী সাইটের মাধ্যমে। এই অনলাইন প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে বাইরের দেশে ও ক্লাস করা সম্ভব।এই কনটেন্টির মাধ্যমে বোঝা যায়।

    Reply
  105. প্রযুক্তির অগ্রগতি এবং মানুষের কাছে এর প্রবেশযোগ্যতার সাথে, অনলাইন শিক্ষা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।যা ই-লার্নিং নামে পরিচিত। এছাড়াও, ই-লার্নিং প্রত্যেকের জন্য একটি শিক্ষার বাস্তবতা হয়ে উঠেছে। এই ই-লার্নিং অ্যাপগুলির সাহায্যে, যে কোনও জায়গা থেকে এবং যে কোনও সময় বিভিন্ন বিষয় সর্ম্পকে দ্রুত জ্ঞান অর্জন করা সম্ভব। আপনি একজন ছাত্র হোন বা একজন পেশাদার হোন, আপনার জন্য নির্দিষ্ট জ্ঞান এবং বিশেষ শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রয়োজন হতে পারে যা সবসময় শারীরিকভাবে গ্রহণ করা সম্ভব নয়। বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় কিছু তরুণ উদ্যোক্তাদের দ্বারা শুরু করা ১০টি ফ্রি অনলাইন শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট রয়েছে যাদের ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম, এবং অ্যাপগুলি সার্বক্ষণিক প্রচার করছে এবং শেখার প্রক্রিয়াটিতে সৃজনশীলতা যোগ করছে। এই সাইটগুলোর মাধ্যমে অতি সহজেই ঘরে বসে যেকোনো বিষয়ে জানা যায়।
    লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ এতো সুন্দর একটা বিষয় সকলের কাছে তুলে ধরার জন্য।

    Reply
  106. এখন অনলাইনের কল্যাণে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা সহজ হয়েছে। অফলাইনে শিক্ষকদের গাইডলাইন,বই ইত্যাদির পাশাপাশি অনলাইনে-ও তারা পড়াশোনায় সাপোর্ট পাচ্ছে। বিভিন্ন ওয়েবসাইট শিক্ষা সম্পর্কিত সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করে।এখন শিক্ষাভিত্তিক অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে।তবে সবগুলোতে সঠিক,সহজ,মার্জিত তথ্য থাকে না।এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের সঠিক ওয়েবসাইট বেছে নিতে হবে।এই কনটেন্টে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ টি ফ্রি ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি শিক্ষার্থীদের সুবিধা হবে।

    Reply
  107. বর্তমানে ডিজিটাইলাইজেশনের যুগে ঘরে বসে অনেক কিছু করা সম্ভব। এমনকি অনেক বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষা অর্জন করা সম্ভব। গুগল, ইউটিউব ছাড়াও সেরা ১০টি ফ্রী অনলাইন সাইট আছে । যেখানে থেকে শিক্ষা নিয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জন করা সম্ভব। লেখককে অসংখ্য ধন্যবাদ এতো গুরুত্বপূর্ণ কন্টেন্ট শেয়ার করার জন্য । এটা শিক্ষার্থীদের অনেক উপকার এ আসবে।

    Reply
  108. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে।কিন্তু বর্তমানে অনলাইন পড়াশুনা করার জন্য বিভিন্ন ফ্রী সাইট ব্যবহার করা যাচ্ছে। এই আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  109. আর্টিকেলটিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করার জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply
  110. মাশাআল্লাহ, এই কনটেন্টটি অনেক উপকারী। এর মাধ্যমে আমরা অনলাইনে পড়াশুনার জন্য জনপ্রিয় ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে পেরেছি।

    Reply
  111. বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে। গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য ফ্রী কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি। বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে যেমন-হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি – ফ্রি অনলাইন ডিগ্রি ও কোর্স,এডএক্স-কোর্সেরা ফ্রি ইউনিভার্সিটি কোর্স,এমআইটি ওপেন কোর্সওয়্যার,টেড-এড কোর্সেস ইত্যাদি।উক্ত কন্টেন্টে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ ফ্রি ওয়েবসাইটের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। যেখানে থেকে আমরা পড়াশোনা করতে বা শিখতে পারব। ইনশাআল্লাহ। লেখককে ধন্যবাদ এতো সুন্দর করে প্রতিটা বিষয় বুঝিয়ে উপস্থাপন করার জন্য।

    Reply
  112. মাশাআল্লাহ, এই কনটেন্টটি অনেক অনেক উপকারী। এর মাধ্যমে আমরা অনলাইনে পড়াশুনার জন্য জনপ্রিয় ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে পেরেছি।এই কনটেন্টটির মাধ্যমে আমরা অনেক উপকৃত হবো।

    Reply
  113. অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব। অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশোনা করলে সময় সাশ্রয় সম্ভব।এখন একজন ইচ্ছা করলে ই কষ্ট করে দূরে গিয়ে টাকা খরচ না করে ঘরে বসে অনলাইনে বিনা মূল্যে নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কোর্স করে জ্ঞান অর্জন এর পাশাপাশি সার্টিফিকেট পেতে পারে।ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।লেখককে ধন্যবাদ জানাই অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০ টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শেয়ার করার জন্য।

    Reply
  114. বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় কিছু তরুণ উদ্যোক্তাদের দ্বারা শুরু করা ১০টি ফ্রি অনলাইন শিক্ষামূলক ওয়েবসাইট রয়েছে যাদের ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম, এবং অ্যাপগুলি সার্বক্ষণিক প্রচার করছে এবং শেখার প্রক্রিয়াটিতে সৃজনশীলতা যোগ করছে।অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব।

    Reply
  115. বর্তমানে আমরা অনলাইন নির্ভর হওয়ায় অনলাইনে শিক্ষা অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ নানান দিক উন্মোচিত হয়েছে, অনলাইনে লেখাপড়ার ফলে ছাত্রছত্রীরা যেমন যুগের সাথে তাল মিলিয়ে জ্ঞানার্জন করছে, তেমনি অনলাইনে নানান চাকরীর জন্য নিজেদের প্রস্ততও করছে।
    ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।
    প্রযুক্তির বদৌলতে বর্তমানে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে।
    আবার বিশ্বসেরা কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইন ভিত্তিক কোর্স করার পর সার্টিফিকেটও প্রদান করা হয়। যা যেকোনো চাকরিক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়।

    Reply
  116. গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।গুগল, ইউটিউব ছাড়াও সেরা ১০টি ফ্রী অনলাইন সাইট আছে । যেখানে থেকে শিক্ষা নিয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জন করা সম্ভব।মাশাল্লাহ সুন্দর একটি কন্টেন্ট লেখার জন্য ধন্যবাদ লেখক কে অনেক কিছু সম্পর্কে জানতে ও ধারণা নিতে পারলাম

    Reply
  117. বর্তমান বিশ্ব প্রযুক্তি নির্ভর। আমরা এখন চাইলে ঘরে বসে বিদেশি নামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসগুলো করতে পারি। অনলাইন থেকে শিক্ষা গ্রহণ বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় একটি বিষয়। অনলাইনে পড়ালেখা করতে অভ্যস্ত শিক্ষার্থীদের জন্য খুব সুন্দর একটা গাইড লাইন হতে পারে এই কনটেন্ট টি।
    লেখককে ধন্যবাদ এতো সুন্দর করে প্রতিটা বিষয় বুঝিয়ে উপস্থাপন করার জন্য।

    Reply
  118. ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।এই পোস্টে আন্তর্জাতিক ১০+ অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে যেখানে বিনামূল্যে কোর্সভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করা সম্ভব। যা জেনে শিক্ষার্থীদের অনেক উপকার হবে।

    Reply
  119. বর্তমান সময়ে অনলাইনে পড়াশোনা করা যায় এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে। তবে কিছু ফ্রি ওয়েবসাইট রয়েছে যার কথা এই আর্টিকেলে বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরা হয়েছে।

    Reply
  120. প্রযুক্তির অগ্রগতি এবং মানুষের কাছে এর প্রবেশযোগ্যতার সাথে, অনলাইন শিক্ষা, যা ই-লার্নিং নামেও পরিচিত।বর্তমান প্রযুক্তির বদৌলতে ঘরে বসেই বিশ্বের সেরা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার সুযোগ রয়েছে,এবং তার অনেক গুলোই বিনামূল্যে। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও নিজেদের চিন্তার জগৎ প্রসারিত করা যায়।অনলাইনের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যেকোন কিছু শেখা সম্ভব। অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশোনা করলে সময় সাশ্রয় সম্ভব। এই আর্টিকেলটিতে এমন দশটি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বলা হয়েছে যেখানে এই কোর্স করার মাধ্যমে সার্টিফিকেট অর্জন করা সম্ভব।অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা ১০টি ওয়েবসাইট (ফ্রি) শিরোনামের এই আর্টিকেলটি সম্পুর্ণ পড়ার মাধ্যমে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।
    লেখককে অনেক ধন্যবাদ এই ধরনের আর্টিকেল লেখার জন্য ।

    Reply
  121. বর্তমানে আমরা অনলাইন নির্ভর হওয়ায় ঘরে বসে বিশ্বের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতে পারি।এখানে তেমন দশটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা বলা হয়েছে।পড়াশোনার পাশাপাশি অনলাইনে আমারা বিভিন্ন কোর্স করে ইনকাম করতে পারি। অনলাইন নির্ভর পড়াশোনা আমাদের অনেক সময় ও অর্থ বাঁচিয়ে দেয়।কনটেন্টি সকল ছাত্র ছাত্রীদের পড়া উচিত। লেখক কে অসংখ্য ধন্যবাদ।

    Reply
  122. গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। তবে জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত।অনলাইনে এমন অনেক কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করা যায় এবং সেখান থেকে সার্টিফিকেট গ্রহনের সুযোগ রয়েছে যা চাকরির ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়।তেমন কয়েকটি কোর্স সম্পর্কে এই লেখাটিতে বলা আছে।

    Reply
  123. ইন্টারনেটে অসংখ্য কোর্স রয়েছে যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।গুগল কিংবা ইউটিউবের বদৌলতে আমাদের তথ্য ও জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দিনদিন বেড়েই চলেছে। বর্তমান বিশ্বের এই জনপ্রিয় ওয়েবসাইট গুলোর মতো বাংলাদেশ ও এখন রয়েছে অনেক জনপ্রিয় শিক্ষার ওয়েবসাইট। যেগুলোর মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন ধরনের কোর্স সম্পূর্ণ করে কাজের ক্ষেত্রে নিজেদের দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারি।এছাড়াও রয়েছে আন্তর্জাতিক লার্নিং অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যেখানে বিনামূল্যে কোর্স ভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করা যায়।উক্ত কনটেন্ট এ লেখক এমন কিছু আন্তর্জাতিক লার্নিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে আমাদেরকে জানিয়েছেন যার মাধ্যমে আমরা কোর্সভিত্তিক জ্ঞান অর্জন করে নিজেদের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে কাজের ক্ষেত্রে সফল হতে পারি ঘরে বসেই।লেখক কে অসংখ্য ধন্যবাদ এত গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে আমাদেরকে ধারণা দেওয়ার জন্য যা সময়োপযোগী বলে বিবেচিত।

    Reply
  124. দিন যত যাচ্ছে প্রযুক্তি ততই উন্নত হচ্ছে। পড়াশোনা,,,ক্ষেত্র বিশেষ বিভিন্ন আয়ের উৎস এমনকি আরো নানান মাধ্যম রয়েছে এই অনলাইন প্লাটফর্মে।
    অনলাইন প্লাটফর্ম দ্বারা ঘরে বসেই এখন পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত হতে যে কোন কাজ করা সম্ভব। তেমনি ভাবে অনলাইন প্লাটফর্ম দ্বারা পড়াশোনা করে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানোও এখন সম্ভব। নিজের মনোভাব মনোযোগ একাগ্রতা থাকতে হবে। আর লেখকের এই কলামটি প্রতিটি অনলাইন প্লাটফর্ম মাধ্যমে পড়াশোনা করা শিক্ষার্থীদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও উপকারী।

    Reply
  125. সাধারণ অবস্থায় বা স্বাভাবিক ভাবে সরাসরি শিক্ষকের কাছে শিক্ষা গ্রহন করা সবসময়ই শ্রেষ্ঠ।এটি একটি প্রভাতালোকের ন্যায় বাস্তবতা, যা অস্বীকার করার বিন্দুমাএ সুযোগ নেই।কিন্তু বিভিন্ন কারনে সুবিধা ও অসুবিধা কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীরা এখন ধীরে ধীরে অনলাইনে ক্লাসের সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে উঠছে।ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসে একাডেমিক পড়াশোনা পাশাপাশি নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারছে।বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় অনলাইন শিক্ষার ওয়েবসাইট রয়েছে এবং আন্তর্জাতিক ১০+ অনলাইন লানিং প্ল্যাটফর্ম আছে যেখানে আপনি বিনামূল্যে কোর্সের মাধ্যমে জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন।নিম্নে আর্টিকেলটিতে খুব সাজিয়ে ও গুছিয়ে অনলাইনে পড়াশোনা করার সেরা (১০) ওয়েবসাইড সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছে,যার মাধ্যমে অনেক অজানা বিষয় সম্পর্কে জানতে সাহায্য করবে ও স্পষ্ট ধারণা পাবেন।

    Reply
  126. অনলাইন এর যুগে নিজের পছন্দ অনুযায়ী বিষয়ে পড়াশোনা করতে পারাটা অনেক সহজতর হয়ে গিয়েছে। অনেক সময় এর মাধ্যমে পড়াশোনা বিষয়ক সমস্যাও সমাধান পাওয়া যায়। আর এই কাজগুল আরো সহজ করে দিয়েছে ফ্রি ওয়েবসাইট গুলো । এতে করে পৃথিবীর যেকোনো যায়গায় বসে একজন শিক্ষার্থী খুব সহজে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারে। উপরিউক্ত ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে একটি থেকে আমি নিজেও উপকৃত হয়েছি ।

    Reply
  127. জ্ঞান অর্জন যদি বিষয়ভিত্তিক হয়, তা হয়ে উঠে আরো উপভোগ্য এবং লক্ষযুক্ত। ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য কোর্স রয়েছে, যেগুলো অধ্যয়নের মাধ্যমে ঘরে বসেই আমরা একাডেমিক জ্ঞানের গন্ডি পার করে নিজেদের জ্ঞানের প্রসার ঘটাতে পারি।কন্টেন্টটিতে কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট এর নাম দেয়া হয়েছে যা জ্ঞান অর্জনে সহায়ক হবে।

    Reply
  128. বাংলাদেশে শিক্ষার জনপ্রিয় ওয়েবসাইট রয়েছে। ইন্টারনেট কোর্সের মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারি। টেন মিনিট স্কুল দিন দিন আমাদের উৎসাহিত করছে। হাভার্ড ইউনিভার্সিটি কোর্স, ADAX কোর্স, গুগল ডিজিটাল কোর্স, লিন্ডা কোর্স, ইউডেমি, ওয়েসি বার্কলে, এমআইটি, ট্রেড কোর্স রয়েছে।
    এই ধরনের নিবন্ধের জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

    Reply

Leave a Comment