অনিশ্চয়তায় চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম আবারও আটকে গেছে। এবারও একটি রিটের কারণে এ নিয়োগে ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে। ফলে আবারও অনিশ্চয়তায় পড়েছেন নিয়োগের আশায় থাকা ৩২ হাজার প্রার্থী। এখন কীভাবে এই নিয়োগ দ্রুত করা যায়, সে জন্য পথ খুঁজছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, আইনগত দিক বিশ্লেষণ করে দ্রুত আইনি জটিলতা এড়িয়ে কীভাবে নিয়োগ দেওয়া যায়, সে পথ খোঁজা হচ্ছে।

 চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রমের বিষয়ে এনটিআরসিএর একাধিক সূত্র বলেন, ‘নিয়োগ কার্যক্রম একেবারেই গুছিয়ে আনা হয়েছিল। কয়েক দিনের মধ্যেই নিয়োগের সুপারিশের আনুষ্ঠানিকতাও শেষ করার চেষ্টা ছিল। কিন্তু শেষ সময়ে এসে একটি রিট করা হয়েছে। ফলে হাইকোর্ট এ নিয়োগ কার্যক্রমের ওপরে ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দিয়েছে। এরপরও আইনি নানা দিক বিশ্লেষণ করে সমাধানের পথ খোঁজার চেষ্টা করা হচ্ছে। ছয় মাস তো অনেক দীর্ঘ। এত দিন অপেক্ষা করা চাকরিপ্রার্থীদের পক্ষে দুষ্কর। এটি যাতে করতে না হয়, আবার আইনেরও ব্যত্যয় না হয়, সে জন্য আমরা পথ খুঁজছি। সমাধানের রাস্তাও খোঁজা হচ্ছে, যাতে দ্রুতই নিয়োগ দেওয়া যায়।’

আইনি জটিলতায়  আটকে গেছে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি, সমাধান কবে

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি নিয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএর চেয়ারম্যান এনামুল কাদের খান বলেন, ‘আইনি জটিলতা আছে। এ নিয়ে বক্তব্য দিতে পারছি না। চেষ্টা আছে সমাধানের। এর বেশি কিছু বলতে পারছি না।’

এবারই নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া চাকরিপ্রার্থীদের কর্মস্থলে যোগদান সহজ ও দ্রুত করতে এনটিআরসিএ অনলাইন ভেরিফিকেশন চালু করে। ইতিমধ্যে ভি-রোল ফরম পূরণ শেষও হয়ে গেছে। কিন্তু নিয়োগপ্রক্রিয়া শেষ না হওয়ায় হতাশ চাকরিপ্রার্থীরা।

**এনটিআরসিএ জানায়, চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া প্রার্থীরা অনেক দিন ধরে এ নিয়োগ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত আছেন। প্রথমে প্রিলিমিনারি, পরে লিখিত ও সর্বশেষ মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে পাস করেছেন। এরপর পছন্দের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আবেদন এবং সেখানে খালি থাকা সাপেক্ষে নিয়োগের সুপারিশ পেয়েছেন। দীর্ঘ এ সময়ে তাঁরা অনেক ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছেন। তাই নিয়োগ পাওয়ার এই শেষ অবস্থায় প্রার্থীদের নিয়োগ দ্রুত শেষ করার কথা ভাবছে এনটিআরসিএ।*

আরও দেখুন

 ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন লিখিত পরীক্ষার ফল

১৭তম নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা চলতি মাসে

পানি উন্নয়ন বোর্ডের লিখিত পরীক্ষার সময়সূচী

ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীরা দ্রুত যোগদান চান। এ জন্য দ্রুত চূড়ান্ত সুপারিশ নিয়ে যোগদানের দাবি জানিয়ে মানববন্ধন করছেন প্রাথমিক সুপারিশপ্রাপ্তরা। ৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে রাজধানীর ইস্কাটনে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন করছেন তাঁরা। চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির চূড়ান্ত সুপারিশের দাবি জানিয়ে তাঁরা বলছেন, প্রাথমিক সুপারিশ পাওয়ার কয়েক মাস পার হলেও চূড়ান্ত সুপারিশ করা হচ্ছে না। এনটিআরসিএ কালক্ষেপণ করছে। ফলে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে দুরবস্থায় সময় পার করছেন তাঁরা। দ্রুত গণবিজ্ঞপ্তির দাবি জানান তাঁরা।

আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল সরকারি ও বেসরকারি“ চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে থাকি এবং পরীক্ষার সময়সূচি ও পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ” করে থাকি”। আপনি যদি প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের সকল চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আপডেট পেতে আগ্রহী হন তাহলে ভিজিট করে দেখতে পারেন https://a2zchakri.com/  এই ওয়েবসাইটটি। আপনি চাইলে এই লেখাটি আপনার বন্ধু বান্ধবদের সাথে শেয়ার করতে পারেন নিচে থাকা শেয়ার বাটন থেকে।

Leave a Comment